Breaking News
Home / অন্যান্য / আমার ছেলেটাকে তারা এভাবে মারল: আকিবের মা

আমার ছেলেটাকে তারা এভাবে মারল: আকিবের মা

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে (চমেক) আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ঘটনায় গুরতর আহত দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মাহাদী জে আকিবকে (২১) লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। চিকিৎসাধীন আকিবের জ্ঞান ফিরেছে। তবে তিনি শঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এদিকে ছেলের জন্য পাগলপ্রায় আকিবের বাবা-মা। আকিবের বাবা কুমিল্লা জেলা স্কুলের শিক্ষক গোলাম ফারুক মজুমদার বলেন, আল্লাহর মেহেরবানি ছাড়া আর কিছু বলার নেই। আমি দেশবাসীর কাছে আকিবের জন্য দোয়া চাই। যেন আমার ছেলে আকিব দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠে স্বাভাবিকভাবে পড়ালেখা চালিয়ে যেতে পারে। যা ঘটে গেছে, তা তো আর ফিরে আসবে না। যারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের শাস্তি চাই।

আকিবদের বাড়ি কুমিল্লা শহরের বাদুড়তলা এলাকায়। তার মা নার্গিস আক্তার কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘আমার ছেলেটা গত সপ্তাহে হলে ওঠে। আমাকে বলেছিল, তার এখন হলে যেতে ভালো লাগছে না। আমি বুকে পাথর চাপা দিয়ে ছেলেকে বলি, পড়াশোনা চালিয়ে যেতে। আমার ছেলেটাকে তারা এভাবে মারল! আল্লাহ যেন আমার ছেলেটার জীবন ভিক্ষা দেয়।’

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে শনিবার ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে আহত হন তিন শিক্ষার্থী মাহাদী আকিব, মাহফুজুল হক ও নাইমুল ইসলাম। আহত তিন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করা হয় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে। সেখানে অস্ত্রোপচার হয় আকিবের মাথায়। চিকিৎসকরা জানান, মাথার হাড় ভেঙে রক্তক্ষরণ হয়েছে তার। পরে আকিবকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। তার মাথায় ব্যান্ডেজ করা একটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে।

আকিবের বাবা গোলাম ফারুক মজুমদার কুমিল্লা জিলা স্কুলের শিক্ষক। তিনি জানান, তার দুই ছেলের মধ্যে আকিব ছোট। ২০১৭ সালে জিলা স্কুলের গণ্ডি পেরিয়ে সে পড়াশোনা করে নটর ডেম কলেজে। উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর পরীক্ষা দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজে। পরে চিকিৎসক হওয়ার ইচ্ছাকে গুরুত্ব দিয়ে সে ভর্তি হয় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে। তিনি বলেন, ‘হলের বাইরে থেকে মেডিকেল পড়ানো ব্যয়সাপেক্ষ। আমি একজন শিক্ষক। তাই কিছুটা বাধ্য হয়ে আকিবকে হলে রাখি।’

আকিব ছাত্র রাজনীতি করত কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘সে রাজনীতি করত কি না জানি না। তবুও আজ রাজনীতির কারণে আমার ছেলেটা মৃত্যুশয্যায়। আকিবের জন্য আমি সবার কাছে দোয়া চাই।’

বিডি২৪লাইভ ডট কম

Check Also

শখ পূরণের আগেই সাজানো বিয়ের গেট দিয়েই বের হলো লাশ

বাড়িতে চলছে বিয়ের ধুমধাম আয়োজন, গায়ে হলুদ নিয়ে ব্যস্ত সবাই, রাত পোহালেই বর যাবেন কনের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *