Breaking News
Home / অন্যান্য / দেশেই উৎপাদন হবে উটপাখি, মাংস মিলবে গরুর সমান

দেশেই উৎপাদন হবে উটপাখি, মাংস মিলবে গরুর সমান

দেশে নিরাপদ আমিষের চাহিদা পূরণে গরু-ছাগল-মুরগির পাশাপাশি উটপাখিতে ব্যাপক সম্ভাবনা দেখছেন গবেষকরা। উটপাখির মাংস হালাল। লালন-পালন খরচও কম। পোল্ট্রির চেয়ে এরা তিনগুণ বেশি বাড়ে। একটি উটপাখি থেকে দেড়শ কেজির বেশি মাংস পাওয়া যায়, যা দুটি দেশি গরুর সমান। তাই দেশে এই পাখি বাণিজ্যিকভাবে পালন করা গেলে আমিষের চাহিদা অনেকটা পূরণ করা সম্ভব।

আমিষের এ গুরুত্বপূর্ণ উৎস শক্তিশালী করতে ও বাণিজ্যিকভাবে উটপাখি পালন সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে গবেষণা করছে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএলআরআইএ)। ২০২৫ সালের মধ্যে উটপাখি পালন সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে কাজ চলছে।

জানা যায়, পোল্ট্রি গবেষণা ও উন্নয়ন জোরদারকরণ প্রকল্পের আওতায় উটপাখি নিয়ে গবেষণা চলছে। পাঁচ বছর মেয়াদি প্রকল্পটি ২০১৯ সালের জুলাই থেকে শুরু হয়েছে, যা শেষ হবে ২০২৪ সালের জুনে। গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আনা ১৫টি উটপাখি লালন-পালন শুরু করে সাভারের বিএলআরআই। সবশেষ গত দুই মাস আগে আরও কিছু উটপাখি আনা হয়।

পাখিদের মধ্যে সবচেয়ে বড় উটপাখি। তবে এরা উড়তে পারে না। এদের উচ্চতা হয় সাত থেকে আট ফুট পর্যন্ত। ওজন ১৫০ থেকে ১৮০ কেজি পর্যন্ত হতে পারে। তৃণভোজী এ পাখিটি ঘাস ও লতাপাতা খেয়ে বেঁচে থাকে। ফলে কম খরচে খামারিদের জন্য এই পাখি পালন অনেকটা সহজ।

প্রাণিবিজ্ঞানীরা বলছেন, পোল্ট্রিতে মুরগি, হাঁস, কোয়েল, রাজহাঁস, কবুতর, তিতির, টার্কি, উটপাখিসহ প্রায় ১১টি প্রজাতি রয়েছে। আমাদের গবেষণার মাধ্যমে প্রযুক্তির উদ্ভাবন করতে হয়। সামনের সময়গুলোর কথা চিন্তা করে বিএলআরআই বিভিন্ন গবেষণার কার্যক্রম হাতে নেয়।

সূত্র : জাগো নিউজ

Check Also

তালেবানকে প্রাণঘাতী এয়ারস্ট্রাইকের হুঁশিয়ারি ভারতের

কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে ভারতের বিজেপি শাসিত রাজ্য উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, তালেবানরা যদি ভারতের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *