যে ‍তিনটি কাজ করলে ক্যান্সার থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে

Spread the love

ক্যান্সার যাকে আমরা অনেকেই মরণব্যাধি হিসাবে জেনে থাকি । যা হলে বা’চার কোনো উপায় নাই আমরা সকলেই বলে থাকি । আসলে আমরা এটা জানিনা ক্যান্সার কোনো মরণব্যাধি না এটা থেকে মানুষ বাচতে পারে শুধু মাত্র কিছু কৌশল এবং নিয়ম কানুন মেনে চললে ।

ক্যান্সার এ অধিকাংশ মানুষ মা’রা যায় কোনো জানেন । শুধুমাত্র উদাসীনতায় আর কিছুই না আমরা এটাকে মাথায় অনেকবড় একটা প্রেসার হিসাবে নিয়ে সারভাইব করতে ভূলে যাই ।

আমি আজকে আপনাদেরকে যে তিনটি কাজের কথা বলবো সেগুলা করলে ক্যান্সার পালাবে আপনার শরীর থেকে চলুন যানা যাক সেসকল কাজগুলা কি কি :

প্রথমে যে বিষয়টি আমি বলবো সেটা হলো খাওয়ার অভ্যাস কিছুটা পরিবর্তন করতে হবে ।

এক নাম্বার হচ্ছে চিনি:

আমরা অনেকেই চিনি ছারা খাওয়া অসম্ভব আমরা আমাদের নিত্যদিনের প্রায় খাবারে চিনি ব্যাবহার করে থাকি ।

আসলে আমরা জানিনািএই চিনি আমাদের কতোটা ক্ষ’তি করে থাকে । এই  চিনি খাওয়া ছেরে দিলে আপনার শরীরে ক্যান্সার হবেনা ।

কারন চিনি না পেলে ক্যান্সার এর সেল গুলা এমনিতেই মারা যায় । তাই আমরা এটাকে প্রত্যাহার করার চেষ্টা করবো বা বেছে চলার চেষ্টা করবো ।

দুই নাম্বার যে বিষয়টা সেটা হচ্ছে :

সকাল বেলা নাস্তা করার আগে ঘুম থেকে উঠে আপনি এক গ্লাস গরম পানিতে একটা লেবু চিপে দিয়ে মিশিয়ে আপনি টানা তিনমাস এই সরবত টা থান ক্যান্সার উধাও হয়ে যাবে আপনার শরীর থেকে ।

ক্যান্সার হলে আমরা যে ব্যায়বহুল চিকিৎসা কেমো থেরাপি দিয়ে থাকি গবেষনায় জানা গেছে

এই লেবুর সরবত ঐ কেমোথেরাপির চাইতে অনেক হাজারগুনে ভালো ।

তো আপনি এই অভ্যাসটা প্রতিদিন ঘরে তুলার চেষ্টা করুন যা

আপনার জন্য অত্যন্ত সহজ একটি অভ্যাস বলে আমি মনে করি ।

ক্যান্সার থেকে মুক্তির তিন নাম্বার বিষয়টা হলো:

প্রতিদিন সকালে এবং রাতে নানান লোকের নানান ব্যাপার অভ্যাস থাকতেই পারে ।

সো এগুলার মধ্যে ক্যান্সারের থেকে মুক্তি পেতে আপনি যদি প্রতিদিনের অভ্যাসের মতো রাতে এবং

সকালে তিন চামচ খাটি নারিকেল তেল খেতে পারেন আপনার ক্যান্সার সেরে যাবে ।

দেখুন মানুষ অভ্যাসের দাস । আপনি চাইলে এই অভ্যাস গুলা ঘরে তুলতে পারেন ।

আপনার উপকারের জন্যই আপনি এটা করতে হবে ।

আর মন খারাপ উদাসীনতার তো কোনো অযুহাত নাই । সো চাইবেন এই ব্যাপারগুলা অনায়াসে অভ্যাসে ঘরে তুলার জন্য ।

ডাক্তার গুপ্তপ্রসাদ সেন বিগত পাচ বছর যাবত ধরে একটা জিনিস সবার কাছে প্রচার করে যাচ্ছে যে,

মানুষকে ক্যান্সারের সম্পর্কে সচেতন করতে হবে এবং সেটা হলো মানুষ যেনো উদাসীন না হয়ে মৃ’ত্যুর দিকে ধাবিত না হয় ।

 

Leave a Comment